আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বললেন মেসি!

ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯ | ৩ আষাঢ় ১৪২৬

আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বললেন মেসি!

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৭, ২০১৬

আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বললেন মেসি!

গত তিন বছরে আর্জেন্টিনার হয়ে তিনটি ফাইনাল খেলেছেন মেসি। কিন্তু দলের হয়ে শিরোপা জেততে পারেননি এই ফুটবল জাদুকর। আর সব কয়টি ফাইনালেই কোনো গোলও করতে পারেনি দলটি। অনেক কষ্ট, না পাওয়ার বেদনায় হাহাকার করছেন মেসি। বাংলাদেশ সময় সোমবার কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে টাইব্রেকারে হেরে বেদনায় নীল হয় আর্জেন্টিনা। এমন হারে বিদগ্ধ মেসি জাতীয় দলের হয়ে নিজের ক্যারিয়ারের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন।

সব মিলিয়ে চার-চারটি ফাইনালে হারের মুখ দেখেন মেসি। ২০০৭ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালের পর ২০১৫ ও ২০১৬ সালের আসরেও হেরে যান তিনি। এর আগে ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ ঘটে আর্জেন্টিনা ও মেসির।

গত বছর কোপা আমেরিকার ফাইনালে টাইব্রেকারে চিলির কাছে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। এবারও একই পরিণতি বরণ করতে হলো মেসিদের। টাইব্রেকারের রোমাঞ্চকর লড়াই শেষে মেসির আর্জেন্টিনাকে ৪-২ হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো কোপার শিরোপা ঘরে তোলে চিলি।

টাইব্রেকারে আর্জেন্টিনার হয়ে প্রথম শটটি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন মেসি। নিজের মহানায়ক হওয়ার ম্যাচেই খলনায়কে পরিণত হলেন তিনি। যে কারণে অভিমানে, না পাওয়ার বেদনায় আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে ক্যারিয়ারের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

সত্যিই কি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন না মেসি? সময়ই সেটি বলে দেবে। তবে ফাইনালে হারের পর কান্না ভেজা কণ্ঠে বিদাযের ঘোষণা দিয়েছেন কিং লিও, ‘জাতীয় দলের হয়ে আমার সময় শেষ। চার-চারটি ফাইনালে খেলেছি। এটি (শিরোপা) আমার জন্য নয়। আমি খুব করে একটি শিরোপা জিততে চেয়েছিলাম। কিন্তু সেটি পারলাম না। এখানেই আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টানলাম।

এরপর কথা বলতে গিয়ে যেন গলা থেকে স্বর বের হচ্ছিল না ২০১৪ বিশ্বকাপ এবং ২০১৫ ও ২০১৬ কোপা আমেরিকার ফাইনালে হেরে যাওয়া মেসি, ‘আমার হৃদয়ের অনুভূতি এটা এবং আমার যা মনে হয়েছে আমি তা বলে দিয়েছি। এটি খুবই বেদনাদায়ক মুহূর্ত। এটি এমন এক কঠিন মুহূর্ত যা বলে বা ব্যাখা করে বোঝানো যাবে না। লকার রুমে আমি এটি নিয়ে ভেবেছি। জাতীয় দল আমার জন্য নয়।’

সিআর/এমএআই/কেআরএস