আরবি বলায় বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হলো শিক্ষার্থীকে!

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

আরবি বলায় বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হলো শিক্ষার্থীকে!

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:৪৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০১৬

আরবি বলায় বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হলো শিক্ষার্থীকে!
যুক্তরাষ্ট্রে সাউথওয়েস্ট এয়ারলাইন্সের একটি বিমান থেকে আরবিতে কথা বলার কারণে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে। খবর বিবিসি'র।

ক্যালিফোর্নিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী খায়রুলদিন মাখজুমি জানান, ৯ এপ্রিল বিমানটি গন্তব্যে রওনা দেওয়ার ঠিক আগেই তাকে নামিয়ে দেওয়া হয়। জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুনের এক বক্তৃতায় অংশ নিতে যাচ্ছিলেন তিনি। এ বিষয়ে সে সময়ে ফোনে এক আত্মীয়ের সঙ্গে তিনি কথা বলছিলেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমসকে মাখজুমি বলেন, ‘অনুষ্ঠানটি নিয়ে আমি খুবই উত্তেজিত ছিলাম। আমার এক আত্মীয়কে এ ব্যাপারে জানাতে তাই ফোন করেছিলাম আমি। তার সঙ্গে আরবি ভাষায় কথা বলছিলাম। কথা বলতে বলতে একপর্যায়ে আরবি 'ইনশাল্লাহ' শব্দটি উচ্চারণ করি আমি, যার অর্থ 'সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা'। সে সময় এক নারী আমাকে লক্ষ্য করতে শুরু করেন, আমার দিকে তাকিয়ে ছিলেন তিনি।’

এরপর বিমানটিতে আরবিভাষী এক কর্মকর্তা তাকে বিমান থেকে নেমে যেতে বাধ্য করেন।

মাখজুমি বলেন, 'এই হচ্ছে ইসলামভীতির কারণে দেশের বর্তমান অবস্থা।'

ইরাকি শরণার্থী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় নিয়েছিলেন মাখজুমি। বর্তমানে বার্কেলিতে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন, বিমান থেকে তাকে নামিয়ে দেওয়ার পর আর বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি।

তিনি আরো বলেন, ‘আমি ও আমার পরিবার অনেককিছু সহ্য করছি। এটা তেমনি আরেকটি অভিজ্ঞতা মাত্র... বিশ্বে সবচেয়ে মূল্যবান হলো মানুষ হিসেবে ব্যক্তির মর্যাদা, অর্থ নয়। যদি তারা ক্ষমা চাইতো, তাহলেও হয়তো মানুষের প্রতি সাম্যের দৃষ্টির কিছুটা তারা শিখতে পারত।'

তবে সাউথওয়েস্ট এক বিবৃতিতে দাবি করেছে, সংস্থাটি কোনো ধরনের বৈষম্যকে প্রশ্রয় দেয় না এবং মাখজুমিকে ‘সম্ভাব্য হুমকিপূর্ণ মন্তব্যের কারণে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছিল।’

এনকে/এসজে

 

উত্তর আমেরিকা: আরও পড়ুন

আরও